ইউএনও’র উপর হামলাকারীদের কোনভাবেই ছাড় দেওয়া হবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

Print Friendly, PDF & Email

আইন সমাজ ডেস্ক:

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউওনও) ওয়াহিদা খানম ও তার বাবা মুক্তিযোদ্ধা ওমর আলী শেখের উপর হামলাকারীদের কোনভাবেই ছাড় দেওয়া হবে না বলে হুশিয়ারী দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। আজ শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর ধানমন্ডিতে নিজ বাসভবন থেকে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় তিনি এ হুশিয়ারী দেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন ঘোরাঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার উপর হামলায় যেই জড়িত থাকুক না কেন তাকে ছাড় দেওয়া হবে না। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সেভাবেই কাজ করছে। ঘটনার পরপরই পুলিশ, র‌্যাব, সরকারের বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা তদন্তে নেমেছে। তদন্তের অংশ হিসেবে ইউএনওর বাসার সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। কী কারণে তার ওপর হামলা হয়েছে তা এখনো জানা যায়নি। তবে ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক। যারা এ কাজ করেছে তারা যে দলের বা গোষ্ঠীর কিংবা যতো প্রভাবশালীই হোক না কেন কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। তাদের আইনের মুখোমুখি হতে হবে।

মন্ত্রী বলেন, ওয়াহিদা খানম প্রজাতন্ত্রের কর্মকর্তা । দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে চলেছেন ইউএনওরা। কিন্তু তার ওপরে এ ধরনের হামলা জঘন্যই নয়, বর্বরোচিত। যা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। এ কারণে সরকার প্রথম থেকেই বিষয়টি গুরুত্বসহকারে দেখছে। তার চিকিৎসার ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত খোঁজখবর নিচ্ছেন। একই সঙ্গে তিনি যেন দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠেন সেজন্য সরকারের পক্ষ থেকে চিকিৎসার সব ধরনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। তার উন্নত চিকিৎসা দিতে যা যা করণীয় চিকিৎসকদের পরামর্শে তা করা হবে।

গত বুধবার (২ সেপ্টম্বর) দিনগত রাত আড়াইটার দিকে ঘোড়াঘাট উপজেলা পরিষদ চত্বরে ইউএনওর সরকারি বাসভবনে ঢুকে হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করে ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ইউএনও ওয়াহিদাকে গুরুতর আহত করে তারা। এ সময় মেয়েকে বাঁচাতে এলে বাবা মুক্তিযোদ্ধা ওমর আলী শেখকেও (৭০) জখম করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় ইউএনওর ভাই বাদী হয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা করে। পুলিশ আসামীদের বর্ণনার কথা শুনে তাদের সনাক্ত করে। ভোরে যুবলীগ নেতা জাহাঙ্গির ও তার সহযোগী আসাদুলকে গ্রেফতার করে। তারা বর্তমানে রংপুর রেঞ্জে পুলিশ হেফাজতে রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *