লক্ষাধিক বাংলাদেশি ভিসার মেয়াদ শেষে ভারতে রয়েছেন

Print Friendly, PDF & Email

আইন সমাজ ডেক্স, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০ বৃহস্পতিবার :নতুন নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন অনুযায়ী বাংলাদেশ থেকে  ২০১৪ সালের ডিসেম্বরের আগে আসা অমুসলিম শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দেয়ার কথা বলা হয়েছে। তবে এরই মধ্যে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ভারতে অবৈধভাবে বসবাসকারী বাংলাদেশিদের একটি তালিকা প্রকাশ করেছে। সম্প্রতি লোকসভায় লিখিতভাবে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই জানিয়েছেন, এক লাখের বেশি বাংলাদেশি ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাবার পর অবৈধভাবে ভারতে থেকে গিয়েছেন।  মন্ত্রী জানিয়েছেন, আইনিপথে ভারতে প্রবেশ করেও বর্তমানে বহু বাংলাদেশির  অবস্থান বেআইনি। তিনি জানিয়েছেন, ২০১৭ সালে ভারতে প্রবেশ করার পর থেকে গিয়েছে এমন বাংলাদেশির সংখ্যা ২৫,৯৪২। ২০১৮ সালে ভারতে আসা বাংলাদেশিদের মধ্যে ৪৯,৬৪৫ জন থেকে গিয়েছেন।

আর ২০১৯ সালে অবশ্য অবৈধভাবে ভিসার মেয়াদ শেষে ভারতে থেকে যাওয়া বাংলাদেশির সংখ্যা ৩৫,০৫৫। অবশ্য এর পাশাপাশি যে কয়েক হাজার মানুষ বিচারাধীন হিসেবে ভারতের বিভিন্ন কারাগারে রয়েছেন তার সংখ্যা অবশ্য সরকার জানায় নি। তবে বিজেপি নেতারা বিভিন্ন সময়ে দাবি করেছেন ভারতে অবৈধভাবে থাকা বাংলাদেশির সংখ্যা কোটির বেশি। এদিকে লোকসভায় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সুর খানিকটা নরম করে জানিয়েছেন,আগামী এপ্রিল মাসের মধ্যে যে ‘পপুলেশন রেজিস্টার’ আপডেট করা হবে তার জন্য কোনও কাগজের প্রয়োজন হবে না।

তিনি আরও জানিয়েছেন, এনপিআরে বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করবেন সরকারি আধিকারিকরা। তবে কোনও তথ্যের জন্য কোনও কাগজ দেখাতে হবে না। বিরোধীদের দাবি, এনপিআরের আড়ালে এনআরসি কার্যকর করতে চাইছে সরকার। যদিও মঙ্গলবারই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে, গোটা দেশে এনআরসি করার কোনও পরিকল্পনা সরকারের নেই। ২০১০ সালে প্রথম এনপিআর হয়েছিল। তার পরে হয় ২০১৫ সালে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *